শত্রুকে ফাঁসাতে গিয়ে মেয়েকে হত্যা করলেন বাবা!

 

নিজের

পুলিশের হাতে গ্রেফতারকৃত খুনী পিতা সাদেক (বাঁয়ে) ও তার সহযোগী আবুল

পুলিশের হাতে গ্রেফতারকৃত খুনী পিতা সাদেক (বাঁয়ে) ও তার সহযোগী আবুল

মেয়েকে খুন করে অন্যকে ফাঁসাতে গিয়ে এক পাষন্ড পিতা এখন জেল হাজতে। ঘটনাটি ঘটেছে জেলার সিরাজদিখান উপজেলায়।

পুলিশ খুনি বাবাসহ এক সহযোগীকে গ্রেপ্তার করে। আটককৃতরা হলেন পিতা মো. সাদেক আলী (৫২) ও সহযোগী আবুল হোসেন (৫০)। এদের মঙ্গলবার মুন্সীগঞ্জ আদালতে পাঠানো হয়। পরে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলে তাদের জেল হাজতে পাঠানো হয়।

স্থানীয় থানার ওসি জানান,  আকবর আলীর ছেলে ফারুকের সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল একই গ্রামের মো. সাদেক আলীর। তারই জের ধরে সাদেক আলী ফারুককে ফাঁসাতে গিয়ে নিজের ১১ বছরের মেয়ে শ্যামলী আক্তারকে হত্যা করে। শ্যামলী স্থানীয় পানিয়ার চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

এসআই আমিনুল ইসলাম জানান, ব্যাপারটি মোবাইল ট্রাকিং করলে সব রহস্য বের হয়ে আসে। পরে পাষান্ড বাবা সাদেক আলী এবং সহযোগী আবুলকে সোমবার গভীর রাতে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসি। জিজ্ঞসাবাদে দুজনেই খুনের বর্ণনা দেন।

এসআই আমিনুল বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। -সংবাদ সূত্র : ইত্তেফাক

মন্তব্য