কোলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব সহ চারটি উৎসবে বাংলাদেশের প্রামাণ্যচলচ্চিত্র ” ঝলমলিয়া – The Sacred Water” আমন্ত্রিত

card_page_1

অটোয়া: রবিবার ৬ নভেম্বর, ২০১৬ – প্রামাণ্যচলচ্চিত্র নির্মাতা সাইফুল ওয়াদুদ হেলাল পরিচালিত চলচ্চিত্র “ঝলমলিয়া – The Sacred Water” আগামী ১১ থেকে ১৮ নভেম্বরে অনুষ্ঠেয় ২২ তম কোলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শনের জন্য নির্বাচিত হয়েছে। কোলকাতায় হবে ঝলমলিয়ার এশিয় প্রিমিয়ার। এর আগে সেপ্টেম্বর ও অক্টোবরে ছবিটি আমেরিকা ও ইউরোপের উৎসবে প্রদর্শনের মধ্যদিয়ে এর আন্তর্জাতিক যাত্রা সূচনা করে।

” ঝলমলিয়া – The Sacred Water “, বাংলাদেশের জল, কাদা, জীবনের একটি ঘনিষ্ঠ পর্যবেক্ষণের চলচ্চিত্র। ঘূর্ণিঝড় আইলা পরবর্তী ছয় বছর ধরে এই চলচ্চিত্রের চিত্রগ্রহন করা হয়েছে মোংলা বন্দরের অনতি দূরে দক্ষিনাঞ্চলের একটি গ্রমে। এক ঘূর্ণিঝড় হতে পরবর্তী ঘূর্ণিঝড় সতর্কতা পর্যন্ত বাংলাদেশের উপকূলীয় গ্রাম, গ্রামীন জীবন এবং মানুষের জীবনযাত্রাকে নিবিড় ভাবে পর্যবেক্ষন করবার চেষ্টা করা হয়েছে এই ছবিতে।

ঝলমলিয়া ইতিমধ্যে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক উৎসবে প্রদর্শিত হয়ে দর্শকের মনোযোগ আকর্ষন করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের আলবেনি শহরের ক্যাপিটাল সিনেমা ফিল্মমেকার্স ল্যাব ফাইনালিষ্ট “ঝলমলিয়া – The Sacred Water” এর ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হয় গত ২৫ অক্টোবর সিনেমাল্যাবের সমাপনী চলচ্চিত্র হিসেবে। ১৫ অক্টোবর চেক প্রজাতন্ত্রের বার্ণো শহরে ইয়োরোপের প্রাচীনতম পরিবেশ বিষয়ক চলচ্চিত্র উৎসব ৪২ তম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ইকোফেস্ট ২০১৬ এ বাংলাদেশের প্রামাণ্যচলচ্চিত্র “ঝলমলিয়া – The Sacred Water” প্রদর্শিত হয় ও উৎসবের সর্বোচ্চ পুরস্কার গ্রান্ডপ্রি ও শ্রেষ্ঠ এনভায়রো চলচ্চিত্রের দুটি সন্মানজনক মনোনয়ন লাভ করে। ছবিটি এবারকার কোলকাতা উৎসবের প্রামাণ্যচলচ্চিত্র বিভাগে প্রদর্শনের জন্য নির্বাচিত হয়েছে। এছাড়া আগামী ডিসেম্বরের প্রথম সাপ্তাহে অনুষ্ঠেয় দিল্লী আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের প্রামাণ্যচলচ্চিত্র বিভাগে, ইন্দোনেশিয়ার আন্তর্জাতিক প্রামাণ্যচলচ্চিত্র উৎসব ১৫তম ডকু ফেস্টাতে ও প্রদর্শনের জন্য নির্বাচিত হয়েছে। ডিসেম্বরে ঢাকায় অনুষ্ঠেয় দক্ষিন এশীয়ার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ চলচ্চিত্র উৎসব ১৪তম স্বল্প ও মুক্ত চলচ্চিত্র উৎসবের প্রতিযোগিতা বিভাগে “ঝলমলিয়া – The Sacred Water” প্রদর্শিত হলে সেটি হবে ঝলমলিয়ার বাংলাদেশ প্রিমিয়ার। এবছর ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে ঝলমলিয়া ফিরবে রামপালের হুড়কায়, সেখানে ডিসেম্বরের ২৩ ও ২৪ তারিখ ঝলমলিয়া দীঘির পাড়ে ঝলমলিয়াবাসীর জন্য পর পর দুই রাত প্রমান্যচলচ্চিত্র “ঝলমলিয়া – The Sacred Water” প্রদর্শিত হবে স্থানীয় সনাতন মেলায়। আগামী বছরের মার্চ এপ্রিল হতে “ঝলমলিয়া – The Sacred Water” পুনরায় ইউরোপ আমেরিকায় প্রদর্শিত হবে।

lrwrc912

সু্্যটিং স্পটে নির্মাতা সাইফুল ওয়াদুদ হেলাল

চলচ্চিত্রের বিষয়বস্তু: বাংলাদেশের দক্ষিন-পশিমে উপকুল অঞ্চলের হুড়কা গ্রামে একটি দীঘি আছে, নাম ঝলমলিয়া। সমুদ্রের কাছাকাছি হওয়ায় সমগ্র অঞ্চল জুড়ে সুপেয় পানির অভাব। দীঘিটি হয়ে আছে সেই অঞ্চলের মানুষের পানেয় জলের এক মাত্র উৎস। ২০০৯ সালে সাইক্লোন আইলায় সমগ্র অঞ্চল প্লবিত হলেও দীঘিটি রক্ষা পায়। এই দীঘিকে ঘিরেই এই অঞ্চলের মানুষের জীবন যাপন, লৌকিক-অলৌকিক গল্প আর কল্প কথা।
দিন যায়, বদলায় প্রকৃতি, পরিবেশ। প্রকৃতির কোলে বেড়ে ওঠা মানুষের জীবনে তার প্রভাব পড়ে। প্রকৃতির ইচ্ছায় মানুষের ঘর ভাঙ্গে, মানুষ ভীটে ছাড়া হয়। নিজের ইচ্ছায়ও মানুষ ঘর ভাঙ্গে ঘর ছাড়া হয়। মানুষ বদলালে কতটুকু বদলায়? জীবন ভাসতে ভাসতে কখনো কী কোন পথ খুঁজে পায়?

পরিচালকের জীবনী: ১৯৬৭ সালে বাংলাদেশের ঢাকায় জন্মগ্রহণ , সাইফুল ওয়াদুদ হেলাল কানাডার মন্ট্রিল একজন সাংবাদিক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। মন্ট্রিয়েল থেকে সিনেমা অধ্যয়ন ও টেলিভিশন উৎপাদনে ডিপ্লোমা প্রাপ্তির পর তিনি অনুষ্ঠান নির্মাতা ও সম্পাদক হিসেবে স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেলে কাজ শুরু । লেখালিখি সাংবাদিকতার পাশাপাশি কানাডা এবং বিদেশে বিভিন্ন চ্যানেলের জন্য নির্মাণ করেছেন স্বল্প দৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র , টিভি ম্যাগাজিন এবং প্রামান্যচিত্র।

ঝলমলিয়া নিয়ে আরো জানতে, ( https://filmfreeway.com/project/813757 ) -প্রেস বিজ্ঞপ্তি

মন্তব্য