মিসিসাগায় বসবাসরত বাংলাদেশীদের বনভোজন অনুষ্ঠিত

picnic 1picnic 2

মুস্তাফা দুলারী : ১৩ই আগষ্ট, ২০১৭ বোরবার লেক অন্টারিওর তীরে উন্মুক্ত নীল আকাশের নীচে প্রকৃতির ছায়া ঘেরা সবুজ উদ্দ্যান হিসাবে পরিচিত জ্যাক ডার্লিং মেমোরিয়াল পার্কে বাংলাদেশী ইন মিসিসাগা (BIM) এর বার্ষিক বনভোজন জমজমাট ভাবে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল । প্রবাস জীবনের প্রাপ্তি অপ্রাপ্তির অব্যক্ত যাতনা, কর্মব্যস্ততার যাপিত জীবন আর সময়কে ফাঁকি দিয়ে পিছনে ফেলে মিসিসাগায় বসবাসরত বাংলাদেশীরা পরিবার পরিজন ছেলেমেয়ে বন্ধু বান্ধব নিয়ে জমায়েত হয়েছিল জমজমাট এক বনভোজনে । বনভোজনের সুবাদে প্রবাসে স্বদেশীয় মানুষের সান্নিধ্য পেয়ে সবাই মেতে উঠেছিল উপচে পড়া আনন্দ উল্লাসে ।

মোরগ যুদ্ধ, বালিশ খেলা, প্রশ্ন উত্তর পর্ব, পেনাল্টি গোলের মাধ্যমে ফুটবল খেলা, কবিতা আবৃত্তি, গান পরিবেশনা, দৌড় প্রতিযোগিতার আয়োজন ছিল পুরো বনভোজন জুড়ে । গাছের ছায়াতলে বসে নিজ দেশের স্বভাষীদের সাথে দিনভর চলে গল্প আর আড্ডা । পরিচিত স্বজন আর পুরানো বন্ধু বান্ধবদের কাছে পেয়ে ছোট বড় সবাই হারিয়ে গিয়েছিল এক মিলন মেলায় । দিনভর থেকেছে সবাই হাসি তামাশার ফুরফুরের আমেজে । পড়ন্ত রোদোলা বিকালে ঝাল মুরি, মিষ্টি, তরমুজ ও গরম চায়ের কাপে চুমুক দিয়ে সবাই মিশে একাকার হয়ে গিয়েছিল প্রকৃতির মাঝে ছায়া ঘেরা সবুজ চত্বরে ।

বনভোজনে অংশগ্রহনকারী মিসিসাগায় বসবাসরত ঢাকার বিক্রমপুরের মেয়ে সামানা আহমেদ বলেন, “পরিবার পরিজন বন্ধু বান্ধব নিয়ে বনভোজনে অংশগ্রহন করতে পেরে সবাই ভীষন খুশী । বনভোজন আয়োজনকারীদের অন্যতম সংগঠক কামরুজ্জামান স্বপন বলেন, ” মিসিসাগায় বসবাসরত বাংলাদেশীদের মধ্যে পরিচয় পরিচিতি ও যোগাযোগ বৃদ্ধির লক্ষ্যেই তারা এই বনভোজনের আয়োজন করেছেন । আগামীতেও মিসিসাগা ভিত্তিক অনুষ্ঠান করার উদ্দ্যোগ অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান” । কামরুজ্জামান স্বপন, মুস্তাফা দুলারী, নুরুল কাদের, রুহুল আমিন বনভোজনে গান পরিবেশন করে সবাইকে মুগ্ধ করেন । বনভোজনকে সাফল্যমন্ডিত করার জন্য যারা সার্বিক ভাবে সহযোগিতা করেন তারা হলেন রোকেয়া পারভীন মেরী, সামানা আহমেদ, নুরুল কাদের, আসাসুল চৌধুরী, তানভীর মোর্শেদ হায়দার ও আরো অনেকে ।

টরন্টোর বাংলাদেশী কমিউনিটির সুপরিচিত দক্ষ রিয়েলটর হিশাম চিস্তীর সৌজন্যে বনভোজনে অংশগ্রহনকারী রাফেল ড্রয়ে বিজয়ীদের মধ্যে আকর্ষনীয় পুরস্কার বিতরন করা হয় ।

ছবি  : মুস্তাফা দুলারী

মন্তব্য