টরন্টোতে নির্মিত হতে যাচ্ছে স্থায়ী শহীদ মিনার

Shahid Minar at Tailor Park

টেইলর ক্রিক পার্কে নির্মিতব্য শহীদ মিনারের নকশা

প্রবাসী কণ্ঠ : টরন্টোর বাঙ্গালী অধ্যুষিত ড্যানফোর্থ ভিক্টোরিয়া পার্ক এলাকার নিকটবর্তী টেইলর ক্রিক পার্কে (ডজ রোড এবং ক্রিসেন্ট টাউন রোড এর সংযোগস্থলে) নির্মিত হতে যাচ্ছে প্রবাসীদের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন একটি স্থায়ী শহীদ মিনার। সিটি অব টরন্টোর পার্কস, ফরেস্ট্রি এ্যান্ড রিক্রিয়েশন ডিপার্টমেন্ট প্রয়োজনীয় রিভিউ শেষে গত ৬ সেপ্টেম্বর টেইলর ক্রিক পার্কে শহীদ মিনার স্থাপনের অনুমতি প্রদান করে।
অন্যদিকে সিটি অব টরন্টোর পার্কস এন্ড এনভায়রনমেন্ট কমিটি ৮ সেপ্টেম্বর সর্বসন্মতিক্রমে টেইলর ক্রিক পার্কে স্থায়ী শহীদ মিনার স্থাপনের প্রস্তাব অনুমোদন করে।
টেইলর ক্রিক পার্কের ৫ নং পিকনিক স্পটের পার্শ্ববর্তী পার্কিং লট এর একটি আইল্যান্ডে নির্মিত হবে স্থায়ী শহীদ মিনারটি।
উল্লেখ্য যে, অত্র এলাকার (বিচেস – ইস্ট ইয়র্ক, ওয়ার্ড -৩১) সিটি কাউন্সিলর জেনেট ডেভিস এই স্থায়ী শহীদ মিনারটি স্থাপনের ব্যাপারে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করে আসছেন অর্গানাইজেশন ফর টরন্টো ইন্টারন্যাশনাল মাদার ল্যাংঙ্গুয়েজ ডে মনুমেন্ট ইনক. (OTIMLDM)  এর সাথে। OTIMLDM একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। টরন্টোতে একটি স্থায়ী শহীদ মিনার স্থাপনের বিষয়ে এই সংগঠনটি প্রবাসীদের বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে সমর্থন পেয়ে আসছে। সংগঠনের প্রেসিডেন্ট এ. আজিম দেওয়ান অব্যাহত সমর্থন দানের জন্য প্রবাসী সকলকে ধন্যবাদ জানান।
বাংলাদেশের জনগণের গৌরবোজ্জ্বল একটি দিন একুশে ফেব্রুয়ারী। এটি শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসাবেও সুপরিচিত। বাঙালি জনগণের ভাষা আন্দোলনের মর্মন্তুদ ও গৌরবোজ্জ্বল স্মৃতিবিজড়িত একটি দিন হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে। ১৯৫২ সালের এই দিনে বাংলাকে পাকিস্তানের অন্যতম রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে আন্দোলনরত ছাত্রদের ওপর পুলিশের গুলিবর্ষণে কয়েকজন তরুণ শহীদ হন। তাই এ দিনটি শহীদ দিবস হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে। ২০১০ সালে জাতিসংঘ কর্তৃক গৃহীত সিদ্ধান্ত মোতাবেক প্রতিবছর একুশে ফেব্রুয়ারী বিশ্বব্যাপী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করা হয়।
উল্লেখ্য যে, ইতিপূর্বে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, অস্ট্রেলিয়া ও ফ্রান্সে স্থায়ী শহীদ মিনার স্থাপন করা হয়।

shahid minar

টেইলর ক্রিক পার্কে স্থায়ী শহীদ মিনার স্থাপনের অগ্রগতি নিয়ে আলোচনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত সুধীবৃন্দ

গত ৬ সেপ্টেম্বর টরন্টোর ইয়র্ক সিভিক সেন্টারে স্থায়ী শহীদ মিনার স্থাপনের অগ্রগতি নিয়ে আলোচনার জন্য একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। ঐ অনুষ্ঠানে টরন্টোতে স্থায়ী শহীদ মিনার স্থানের উদ্দেশ্য ও কার্যক্রমের অগ্রগতি নিয়ে আলোচনা করা হয়। আলোচনায় অংশ নেন সিটি কাউন্সিলর জেনেট ডেভিস, OTIMLDM প্রেসিডেন্ট আজিম দেওয়ান, টেইলর ক্রিক পার্কে নির্মিতব্য শহীদ মিনার এর ডিজাইনার ইঞ্জিনিয়ার মনির বাবু, সিটি অব টরন্টোর প্রতিনিধি মেট এবং টারা, মীর্জা শহীদুর রহমান, সাংস্কৃতিক কর্মী ম্যাক আজাদসহ আরো কয়েকজন। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন রিজওয়ান রহমান।

মন্তব্য