সিয়ার্স কানাডার বাকি স্টোরগুলোও বন্ধ হয়ে যাচ্ছে

searsপ্রবাসী কণ্ঠ ডেস্ক : সিয়ার্স কানাডা তাদের বাকি প্রায় ১৩০ টি স্টোরও বন্ধ করে দেয়ার গ্রীন সিগনাল পেল অন্টারিও সুপরিয়র কোর্টের কাছ থেকে। এই প্রক্রিয়ায় স্টোরগুলোতে কর্মরত প্রায় ১২ হাজার কর্মী তাদের চাকুরী হারাবেন। গত ১৩ অক্টোবর সিয়ার্স কর্তৃপক্ষ তাদের বাকি স্টোরগুলো বন্ধ করে দেয়ার এই অনুমতি পায় আদালতের কাছ থেকে। খবর দি কানাডিয়ান প্রেস এর।
উল্লেখ্য যে, সিয়ার্স কানাডা ইতিপূর্বে তাদের ৫৯ টি স্টোর বন্ধ করে দেয় ব্যবসায় বড় ধরণের ক্ষতির সম্মুখীন হওয়াতে। ঐ সময় ২,৯০০ জন কর্মীকে ছাটাই করতে হয়েছিল কানাডার এই সুবৃহৎ কোম্পানীটিকে। তখন আদালতের স্মরণাপন্ন হতে হয় সিয়ার্স কানাডাকে তাদের ঋনদাতাদের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য।
সিয়ার্সের বাকি স্টোর গুলো গুটিয়ে ফেলার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে অক্টোবরের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে। এই প্রক্রিয়া পরবর্তী ১০ থেকে ১৪ সপ্তাহ পর্যন্ত চলবে।
আগামী ক্রিসমাসের আগে হয়তো এর ক্লোজিং সেল শুরু হতে পারে।
জাস্টিস এষবহহ ঐধরহবু সিয়ার্স কানাডার মোশন অনুমোদন করে গত ১৩ অক্টোবর বলেন, এই প্রতিষ্ঠানটির সামনে আর কোন টেকসই বিকল্প পথ খোলা নেই। তিনি সিয়ার্স কানাডার লিকুইডেশন প্রসেস এর জন্য ক্রেডিটর প্রটেকশন আগামী ২২ জানুয়ারী পর্যন্ত বর্ধিত করেন।
সিয়ার্স কানাডা গত প্রায় ৬৫ বছর ধরে কানাডায় ন্যাশনাল রিটেইলর হিসাবে ব্যবসা চালিয়ে আসছে।
কিছুদিন আগে একটি ক্রেতা দল চেষ্টা করেছিল প্রতিষ্ঠানটি কিনে নিয়ে একে মৃত্যুর হাত থেকে বাঁচানোর জন্য। এই দলের নেতৃত্বে ছিলেন সিয়ার্স কানাডার সাবেক এক্সিকিউটিভ চেয়াম্যান ব্র্যান্ডন স্টেঞ্জল। তিনি গত আগস্ট মাসে সিয়ার্স এর এক্সিকিউটিভ চেয়াম্যান পদ থেকে সরে দাড়িয়েছিলেন কোম্পানীটি কিনে নেয়ার প্রক্রিয়ায় অংশ গ্রহণ করার জন্য।
সিয়ার্স কানাডার আইজীবী জেরমী ডেকস বলেন, কোম্পানী খুব আশাবাদী ছিল এটি বন্ধ হয়ে যাওয়ার হাত থেকে বেঁচে যাবে। এর অংশীদার এবং অন্যান্য জড়িত ব্যক্তিগণ আপ্রাণ চেষ্টা করে গেছেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারা সিদ্ধান্ত নেন সুদীর্ঘ সময়ের এই ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ করে দেয়াই সবচেয়ে উত্তম হবে এর অংশীদারদের স্বার্থ রক্ষার জন্য।

মন্তব্য