কর্মস্থলে যাওয়ার পথে দেরী হয়ে গেছে?

 

দেরী হওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করে টিটিসি আপনাকে নোট দিতে পারে আপনার বসকে দেখানোর জন্য

TTC

টরন্টোতে টিটিসি-র কারণে যাত্রা পথে দেরী হলে কারণ সম্বলিত নোট পাবেন যাত্রীরা কর্মস্থলে দেখানোর জন্য। ছবি : মেট্রো

প্রবাসী কণ্ঠ ডেস্ক : আপনি সময়মত বাসা থেকে বের হলেও রাস্তায় জ্যাম, সড়ক দুর্ঘটনা বা যানবাহনের যান্ত্রিক ত্র“টির কারণে কর্মস্থলে পৌঁছাতে দেরী হয়ে যাওয়াটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। যারা বাস, ট্রেন বা সাবওয়ে ধরে কর্মস্থলে যান তাদের সকলেরই এরকম অভিজ্ঞতা আছে কম বেশী। আর যারা নিজস্ব গাড়িতে কর্মস্থলে যাতায়ত করেন তাদেরও রয়েছে এরকম অভিজ্ঞতা।

আর এর অবসম্ভাবী পরিনতি হলো কর্মস্থলে মালিক বা সুপারভাইজারের প্রশ্নের মুখমুখি হওয়া। মালিক বা সুপারভাইজার যদি কড়া স্বভাবের হন বা আপনার ব্যক্তিগত কোন অজুহাত শুনতে রাজী না হন তবে সমস্যা হতেই পারে। তবে এই সমস্যা সমাধানে এবার এগিয়ে আসছে টরন্টো ট্রানজিট কমশিন (টিটিসি)। টরন্টোর মেট্রো নিউজ জানায়, টিটিসি আপনাকে একটি নোট দিবে দেরী হওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করে যদি এর জন্য তারা দায়ী হয়ে থাকে। আপনি সেই নোট আপনার মালিক বা সুপারভাইজারকে দেখাতে পারেন এবং বলতে পারেন যে, আপনার নিজের কারণে দেরী হয়নি কর্মস্থলে পৌঁছাতে।

মেট্রো সূত্রে আরো জানা যায়, প্রকৃতপক্ষে টিটিসির এই কার্টেসী সার্ভিস আগে থেকেই বিদ্যমান রয়েছে। তবে প্রচারণার অভাবে বিষয়টি সম্পর্কে যাত্রীদের সাবই তেমনভাবে অবহিত নন।

স্মরণ করা যেতে পারে যে কয়েক সপ্তাহ আগে জাপানের টোকিওর বাইরে একটি ট্রেন স্টেশন থেকে ২০ সেকেন্ড আগে ছেড়ে গিয়েছিল। কেন ২০ সেকেন্ড আগে ট্রেনটি স্টেশন ত্যাগ করলো তা নিয়ে যখন প্রশ্ন উঠে তখন রেলওয়ে কোম্পানী ক্ষমা প্রার্থনা করে।

নিউইয়র্ক, প্যারিস, লন্ডন, টরন্টো, মন্ট্রিয়ল সহ বিভিন্ন সিটির গণপরিবহনে কিছুটা দেরী হওয়ার ঘটনা যখন প্রায়ই ঘটে, সেখানে জাপানের ঐ ঘটনা নিয়ে কিছুটা কৌতুক সৃষ্টি হয়েছিল স্বাভাবিকভাবেই এবং তা দিন কয়েক একটি আলোচনার বিষয়ও হয়ে দাড়িয়েছিল। তবে টিটিসি এই সুযোগে সবাইকে জানিয়ে দেয় যে, গণ পরিবহনের সমস্যার কারণে কর্মস্থলে কারো পৌঁছাতে দেরী হলে দেরীর কারণ ব্যাখ্যা করে এটি নোট দেয়া হবে যাত্রীদেরকে যদি কেউ তা চান। এটি অবশ্য টিটিসির অনুষ্ঠানিক কোন নীতি বা ফরমাল কোন পলিসি নয়।

নোট নেয়ার পদ্ধতিটি কি এবং কি ভাবে তা কাজ করে এ বিষয়ে টিটিসির মুখপাত্র সুসান স্পারলিং-কে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি মেট্রো প্রতিনিধিকে বলেন, নোটের জন্য কোন বিলম্বিত যাত্রী আবেদন জানাতে পারেন টিটিসির কাস্টমার সার্ভিসের হটলাইন ৪১৬ ৩৯৩ ৩০৩০ এ ফোন করে। সপ্তাহের যে কোন কর্মদিবসে সকাল ৭টা থেকে রাত ১০টার মধ্যে উল্লেখিত নাম্বারে ফোন করে আবেদন করা যেতে পারে। টেলিফোনের মাধ্যমে যারা আবেদন করবেন তারা এক কর্মদিবসের মধ্যেই দেরী হওয়ার কারণ সম্বলিত নোট পাবেন। তবে ইমেইল বা অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করলে সেই নোট পেতে এক সপ্তাহও লেগে যেতে পারে। তবে নোটে আবেদনকারীর নাম থাকবে না।

টিটিসি অবশ্য @ttcnotices এবং Twitter account এর মাধ্যমেও যাত্রীদেরকে আগাম জানিয়ে দেয় যদি কোন বাস, স্ট্রিট কার বা সাবওয়ে রুটে দেরী হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। যাত্রীরা এটিও প্রমাণ হিসাবে তাদের মালিক বা সুপারভাইজারকে দেখাতে পারেন যদি তারা এগুলো গ্রহণ করেন।

গো বাস বা ট্রেনে অবশ্য টিটিসির মত নোট দেয়ার রীতি নেই। তবে দেরী হওয়ার সম্ভাবনা থাকলে তারা ইমেইল এবং টেক্স ম্যাসেস এর মাধ্যমে যাত্রীদেরকে তা জানিয়ে দেয়। সে ক্ষেত্রে যাত্রীগণ তা প্রমাণ হিসাবে কর্মস্থলে উপস্থাপন করতে পারেন।

মন্তব্য