কানাডার বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রী বিশ্বব্যাপী চাকুরীদাতাদের কাছে এখনো উচ্চ মাত্রায় গুরুত্ব পেয়ে থাকে

কানাডার ৫ টি বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাংকিং টেবিলে টপ ১০০ এর মধ্যে অবস্থান করছে। এর মধ্যে কদরের দিক থেকে টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়, ম্যাকগিল বিশ্ববিদ্যালয় ও মন্ট্রিয়ল বিশ্ববিদ্যালয় এর অবস্থান যথাক্রমে ১৩, ১৮ ও ৪৪তম। ছবি: অনলাইন

কানাডার ৫ টি বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাংকিং টেবিলে টপ ১০০ এর মধ্যে অবস্থান করছে। এর মধ্যে কদরের দিক থেকে টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়, ম্যাকগিল বিশ্ববিদ্যালয় ও মন্ট্রিয়ল বিশ্ববিদ্যালয় এর অবস্থান যথাক্রমে ১৩, ১৮ ও ৪৪তম। ছবি: অনলাইন

প্রবাসী কণ্ঠ ডেস্ক : কানাডার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রী নিয়ে যারা চাকরীর বাজারে প্রতিযোগিতায় নামেন তারা বেশ উচ্চ মাত্রায় কদর পান চাকুরীদাতাদের কাছে। উচ্চ মাত্রার এই কদর শুধু কানাডায়ই নয়, পৃথিবীর অন্যান্য দেশেও পান কানাডার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে যারা ডিগ্রী গ্রহণ করেন। নতুন এক জরীপে এই তথ্য উঠে এসেছে যা গত নভেম্বর মাসে প্রকাশিত হয়। খবর GLOBE AND MAIL এর।

এই তথ্যটি প্রকাশিত হয় এমন এক সময় যখন পাশ্চাত্যের অন্যান্য ইংরেজি ভাষাভাষী দেশসমূহের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো কঠিন সংগ্রাম করেও চাকুরীদাতাদের কাছে তাদের গ্রাজুয়েটদের চাহিদা বৃদ্ধি করতে পারছে না। বরং কমে যাচ্ছে।

Times Higher Education Global University Employability Ranking’ এর জরীপে দেখা গেছে কানাডার ৫ টি বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাংকিং টেবিলে টপ ১০০ এর মধ্যে অবস্থান করছে। এর মধ্যে কদরের দিক থেকে টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়, ম্যাকগিল বিশ্ববিদ্যালয় ও মন্ট্রিয়ল বিশ্ববিদ্যালয় এর অবস্থান যথাক্রমে ১৩, ১৮ ও ৪৪তম। ব্রিটিশ কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয় ও ম্যাকমাস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান যথাক্রমে ৪৫ ও ৭৪তম।

প্রাপ্ত তথ্যে দেখা যায়, কানাডাসহ বিশ্ব বাজারে চাকুরীদাতাদের কাছে কানাডার বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর কদর দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিশ্বব্যাপী প্রায় ৬ হাজার চাকুরীদাতা প্রতিষ্ঠানের উপর জরীপ চালিয়ে এই তথ্য পাওয়া গেছে। যে সকল ছাত্র-ছাত্রী বিজনেস, কম্পিউটার সায়েন্স এবং ইঞ্জিনিয়ারিং এ পাশ করে বেরুচ্ছে তাদের কদর বেশী।

টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট মেরিক গ্রেটলার বলেন, আমরা মূল প্রতিযোগিতার বিষয়ের উপর বেশী গুরুত্ব দেই এবং সেই সাথে যে বিষয়ে ছাত্র-ছাত্রীরা লেখা পড়া করছে তার উপরও যথেষ্ট গুরুত্ব আরোপ করে থাকি। আমরা আরো নিশ্চিত করার চেষ্টা করি যাতে আমাদের ছাত্র-ছাত্রীরা যোগাযোগ এর ক্ষেত্রে বেশ দক্ষ হয়। কোন টিমে কাজ করতে হলে এই যোগাযোগ দক্ষতাটা বেশী উপকারী। আমাদের এই উদ্যোগগুলো ভাল ফল দিচ্ছে বিশ্বব্যাপী চাকুরীদাতাদের কাছে আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের কদর সৃষ্টির ক্ষেত্রে।

কানাডিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়গুলো কো-অপ প্রোগ্রাম বা অনজব ট্রেনিং এর উপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে থাকে। কারণ এতে করে ছাত্র-ছাত্রীদের কর্মদক্ষতা বৃদ্ধি পায় ডিগ্রী অর্জনের আগেই।

মন্তব্য